স্যামসাংয়ের স্মার্টফোনে ‘অ্যাড-ব্লকার’

নতুন সংস্করণের অ্যান্ড্রয়েডচালিত স্যামসাং স্মার্টফোন ব্যবহারকারীরা ডিফল্ট ব্রাউজারে চাইলেই অ্যাড-ব্লকার এক্সটেনশন ইনস্টল করতে পারবেন। স্যামসাং এ সুবিধাটি এখন নিয়ে এলেও, মার্কিন টেক জায়ান্ট অ্যাপল ২০১৫ সালের সেপ্টেম্বরেই আইফোন ব্যবহারকারীদের জন্য এ সুবিধা চালু করেছে। আর তাই হয়তো বিষয়টিকে অ্যাপলের ওই পদক্ষেপের সঙ্গেই তুলনা করেছে সংবাদমাধ্যম বিবিসি। অ্যান্ড্রয়েড ললিপপ বা তার পরবর্তী সংস্করণচালিত ফোনগুলোতে নতুন ব্রাউজার ইতোমধ্যেই দেওয়া শুরু করেছে স্যামসাং। এ ছাড়াও স্যামসাং ফোন ব্যবহারকারীরা চাইলেই যাতে অ্যাডব্লকার ‘অ্যাডব্লক’ এবং ‘ক্রিস্টাল’ ব্রাউজারে যোগ করতে পারেন, সে বিষয়টিও নিশ্চিত করেছে স্যামসাং। তবে ব্লকার যোগের কাজটি ব্যবহারকারীকেই করতে হবে, এটি বাই-ডিফল্ট করা থাকবে না বলেই জানিয়েছে বিবিসি। অন্যদিকে স্যামসাংয়ের এই অ্যাড-ব্লকিং পদক্ষেপ প্রসঙ্গে বিশ্লেষক সংস্থা আইএইচএস-এর বাজার বিশ্লেষক ডানিয়েল ন্যাপ বলেছেন, “যারা অ্যাড-ব্লকার ব্যবহার করেন, তাদের ডিফল্ট ব্রাউজারের পরিবর্তে অন্য ব্রাউজার ব্যবহার করার সম্ভাবনাই বেশি। আদতে স্যামসাংয়ের এরকম কোনো সেবা যোগ করার প্রয়োজন ছিল। এর পেছনের মূল কারণটি হচ্ছে, তারা তাদের গ্রাহকদেরকে জানাতে চায় তারাও একটি প্রিমিয়াম ব্র্যান্ড যারা অ্যাপলের মতো গ্রাহকদের রক্ষা করে থাকে।” অ্যাড-ব্লকার ইন্টারনেট ব্রাউজারদের বিজ্ঞাপনের হাত থেকে রক্ষার পাশাপাশি ব্রাউজারের কার্যক্ষতা বাড়াতে এবং ফোন ব্যাটারি চার্জ ও ডেটা খরচ কমাতে সাহায্য করে। ইন্টারনেট অ্যাডভার্টাইজিং বুরোর এক প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে, ২০১৫ সালের নভেম্বরে ১৮ শতাংশ পূর্ণবয়ষ্ক ব্রিটিশ নাগরিক কোন না কোন অ্যাড ব্লকার ব্যবহার করছেন, যা ওই বছরের জুন মাসের তুলনায় তিন শতাংশ বেশি।