Avoid these harmful mistakes while making hair iron
চুলে প্রোটেকশনচুল আয়রন করা আজকাল খুব বেশী সাধারণ বিষয় হয়ে উঠেছে। প্রায় প্রত্যেক নারীর কাছেই রয়েছে চুল আয়রন করার স্ট্রেটনার মেশিন। জরুরী একটি জিনিস। কিন্তু হুটহাট প্রয়োজনে দ্রুত চুল স্টাইলিংয়ের কাজে ব্যবহার করা এই সকল স্ট্রেটনার মেশিনের কারণে আপনি হারাচ্ছেন আপনার চুলের সৌন্দর্য। হেয়ার এক্সপার্ট তারান্নুম বলেন, চুল পড়ে যাওয়া, চুল ভেঙে যাওয়া, আগা ফাটা, চুলের টিস্যু এমনকি মাথার ত্বকের স্থায়ী ক্ষতিও হতে পারে আপনার চুল আয়রন করার সময়ের ভুলের জন্য। পার্লারে চুল আয়রনের সময় কিছু নিয়ম মেনে নিয়ে করা হয় যা ঘরে যারা আয়রন করেন তারা মেনে চলেন না, আর এ কারণেই চুলের মারাত্মক ক্ষতি করে ফেলেন’। আজকে জেনে নিন হেয়ার এক্সপার্টের পরামর্শ অনুযায়ী চুল আয়রনের সময় কোনো ভুলগুলো এড়িয়ে চলবেন।

# হেয়ার প্রোটেকশন ব্যবহার না করা:

 ব্যবহার না করেই আয়রন ব্যবহার করা সবচাইতে বড় ভুল কাজ। কারণ আয়রনের হিট তখন সরাসরি চুলে লাগে এবং চুলের স্থায়ী ক্ষতি হয়। এর ফলেই চুল ভেঙে যাওয়া এবং চুল পড়ার সমস্যা দেখা দেয়’। বাজারে হেয়ার হিট প্রোটেকশনের নানা প্রোডাক্ট পাওয়া যায়। তা ব্যবহার করুন।

# ভেজা চুল আয়রন করা:

ভেজা চুল আয়রন করলে চুলের অনেক ক্ষতি হয়। বিশেষ করে চুলের ফলিকলের অপূরণীয় ক্ষতি হতে থাকে। ভেজা চুল আয়রন করলে হিটের কারণে চুল পুড়ে যায় যা সহসা ঠিক করা সম্ভব হয় না।

# সঠিক হিটে আয়রন না করা:

এই জিনিসটি সবচাইতে বড় ভুল করেন অনেকেই, কারণ চুলের চিকণ ও মোটার ওপরে হিটের পাওয়ার নির্ধারিত করা থাকে। আপনার চুলের জন্য যা সহনশীল তার চাইতে অধিক হিট দিলে চুলের ফলিকল নষ্ট হয়ে যায়। আবার কম হিটে চুল আয়রন করলে একই স্থানে বেশ কয়েকবার আয়রন করতে হয় যা চুলের জন্য ক্ষতিকর। তাই আপনার চুলের জন্য কোনটি সঠিক তা নির্বাচন করে তবেই আয়রন করা উচিত।

# চুল ঠাণ্ডা হতে না দেয়া:

চুল আয়রনের সময় চুল গরম হয়ে যায়। অনেকেই চুল স্বাভাবিক তাপমাত্রায় আসার আগেই চুল সাজানোর কাজ করে থাকেন। এতে চুল ভেঙে যায়। আয়রন করার পর চুল অবশ্যই ঠাণ্ডা করে নেবেন পরবর্তী স্টাইলিংয়ের জন্য।

# চুল নিচের দিকে টেনে আয়রন করা:

অনেকেই চুল নিচের দিকে টেনে আয়রন করে থাকেন। এতে করে মাথার ত্বকে অর্থাৎ চুলের গোঁড়ায় অতিরিক্ত চাপ পড়ে যার কারণে চুল পড়ার সমস্যা বেড়ে যায়। এছাড়াও আপনি যতো নিচের দিকে টেনে আয়রন করবেন চুল ততো ফ্ল্যাট হতে থাকবে এবং আপনার চুল অনেক কম মনে হবে। তারান্নুম পরামর্শ দেন, ‘চুল আয়রনের সময় উপরের দিকে আলতো টেনে আয়রন করুন। এতে চুলে ভলিউম আসবে’।